১৩ সংখ্যাকে কেন Unlucky বলা হয়। Why Number 13 is Unlucky in Bengali

Share It!

সেই প্রাচীন কাল থেকে ১৩ সংখ্যাটিকে আমরা অপয়া নম্বর বা Unlucky 13 বলে জানি বা ভেবে থাকি। আজও  আমরা ১৩ নম্বরটিকে এড়িয়ে চলি এবং খেয়াল রাখি যে, কোনো জায়গায় এই নম্বরটা personal কোনো কিছুর মধ্যে চলে না আসে। যেমন ধরুন mobile number নেবার আগে, ক্লাসের নিজের Roll Number বা ধরুন গাড়ির number পাবার আগে কিছুটা হলেও আমরা সবসময় সতর্ক্য থাকি এই ব্যাপারে।

এই ১৩ সংখ্যাটি কি সত্যিই Unlucky?

আপনারা কী সংখ্যাতত্ত্বে বিশ্বাস করেন? আপনাদের কী কোনোদিনো মনে হয়েছে কোনো একটি নির্দিষ্ট সংখ্যা যা আপনাদের জন্য Lucky বা Unlucky হবে? যদি আপনাদের এটা মনে হয়ে থাকে, তবে তার মধ্যে ১৩ সংখ্যাটি আপনাদের সবারই অপছন্দের তালিকায় থাকার কথা। কারণ ১৩ সংখ্যাটাকে কেউ Lucky নম্বর বলে মনেই করে না। তবে আপনারা কী জানেন শুধুমাত্র একটি কুসংস্কার মাত্র। কত শতকের পর শতক ধরে চলে আসছে এই Unlucky 13 এর কুসংস্কার। এটা শুধুমাত্র একটা Number যা সংখ্যাতত্ব বিচার করে এসেছে এবং গণিতের এর মধ্যে বা বিজ্ঞানের যেকোনো জায়গায় এর ব্যবহার সব সময়ে চোখে পরে। 

১৩ নম্বর নিয়ে পাশ্চাত্যের ধারণা  

পাশ্চাত্য সভ্যতার দাবি, যিশুখ্রীষ্টের জন্মের অনেক আগে থেকেই এই কুসংস্কার ছেয়ে গেছে বিদেশে। দেখা গেছে বহু অফিসে ১৩ নম্বর ফ্লোর রাখা হয় না। কিছু কিছু এয়ার লাইন্স,যেমন – CONTINENTAL AIRLINES এ 13 নম্বর কোনো Row ই নেই। 

শোনা যায় দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী উইনস্টন চার্চিল থিয়েটারের ১৩ নম্বর  Row তে বসতেন না। প্রাচীন কাল থেকে এই ভয়ানক কুসংস্কার আজও চলে আসছে। এখনও রয়ে গেছে বহু মানুষের মধ্যে।

Read More:  [Time Table] Kolkata Metro: কলকাতা মেট্রো রেলের বিস্তারিত সময়সূচি I Kolkata Metro Rail Timings

আপনি যদি কোনও হোটেলে অবস্থানের সময় দেখেন যে ১৩ নম্বরের কোনও ঘর বা ১৩ তলা ওই ভবনে নেই তবে বুঝতে পারবেন যে হোটেলটির মালিক ১৩ নম্বরটিকে অশুভ বলে বিবেচনা করেন। আপনি এমন অনেক লোককেও দেখতে পাবেন যারা কোনও হোটেলে ১৩ নম্বর কক্ষ নিতে মোটেই পছন্দ করেন না। এছাড়াও, আপনি কোনও BAR বা রেস্তোঁরাটিতে ১৩ নম্বরের ডাইনিং টেবিলটি দেখতে পাবেন না। ফ্রান্স এর লোকেরা বিশ্বাস করেন যে খাবার টেবিলে ১৩ টি চেয়ার রাখা ভাল নয়।

বর্তমানের বহু মানুষ এখনও পর্যন্ত 13 নম্বরটিকে এড়িয়ে চলার চেষ্টা করেন।  কিন্তু এর আসল কারণ কী? সারাজীবন মানুষ কেন এই সংখ্যাটিকে অপয়া বলে মনে করে এসেছে? এই নিয়ে বহুজনের বহু মতামত আছে।

আরও পড়ুন: আসছে Microsoft এর New Windows 11 – Released Date, Booking পদ্ধতি

১৩ সংখ্যাকে কেন Unlucky বলা হয়? 

অনেক প্রাচীন মতামত এর সাথে জড়িয়ে আছে।  মতামতগুলি হলো:

প্রথম: 

13 নম্বরটি Unlucky হওয়ার কারণ, প্রচলিত আছে যে একবার যিশু খ্রিস্টকে এক ব্যক্তির দ্বারা বিশ্বাসঘাতকতা করা হয়েছিল যিনি তাঁর সাথে রাতের খাবার খাচ্ছিলেন। লোকটি 13 নম্বর চেয়ারে বসে ছিল। তাই ঠিক তখন থেকেই লোকেরা এই সংখ্যাটি দুর্ভাগ্যজনক হিসাবে বিবেচনা করতে শুরু করে এবং এটিকে অশুভ বলে ধরে নেয়। 

দ্বিতীয়:

আবার প্রচলিত আছে যে যিশুখ্রীষ্টকে ১৩ তারিখ ক্রুস বিদ্ধ করা হয়েছিল বলে, তাই সংখ্যাটিকে ভীষণ অশুভ বলা হয়। আর খ্রিস্টানরাও এই কারণে Friday The 13 number কে অশুভ দিন বলে মনে করে আসছে।

তৃতীয়:

আমাদের ক্যালেন্ডারে 12 মাস এবং দিনগুলিকে 12-12 ঘন্টা সময়ের মধ্যে ভাগ করা হয়েছে। নিখুঁত অঙ্কের ১৩ একটি অবিভাজ্য এবং অযৌক্তিক সংখ্যা (যা দুটি সংখ্যার অনুপাত হিসাবে প্রকাশ করা যায় না)। এ কারণেই বলা হয় যে ১৩ কম দরকারী হওয়ার কারণে ধীরে ধীরে এটি অশুভ নম্বর হিসাবে বিবেচনা করা শুরু হয়েছে।

Read More:  বিশ্বের সবচেয়ে শান্তিপূর্ন প্রথম ১০ দেশ

আরও পড়ুন: জাঙ্ক ফুড শরীরে কিরকম প্রভাব ফেলতে পারে – জানুন ৯টি সমস্যা

চতুর্থ:

অনেকের মতে যিশুর ১৩ সংখ্যক শিষ্য জুটাস যিশুকে ঠকিয়ে ছিলেন বলেই,  ১৩ সংখ্যাটি অশুভ।

পঞ্চম:

অনেকে মনে করেন, ইউরোপে যে ফাঁসির মঞ্চ তৈরি করা থাকতো সেখানে ১৩ টি সিঁড়ি ছিল, তাই এই 13 সংখ্যাটি অশুভ বলা হয়। 

ষষ্ঠ:

এমনও মনে করা হয়, কোনো ব্যক্তির নাম যদি ১৩টি সংখ্যা দিয়ে হয়, তবে সে ব্যক্তি  অভিশপ্ত বা তার সাথে খারাপ কোনো অশুভ আত্মা জড়িয়ে আছে। 

আরও পড়ুন: জুন মাসকে কেন গর্বের মাস বলা হয়

সপ্তম: 

আশ্চর্যের বিষয় হচ্ছে পৃথিবীর সমস্ত বড়ো বড়ো সিরিয়াল কিলাররা, যেমন- জ্যাক দা রিবার্ড, জেফ্রি ডামার, চার্লস ম্যানশন এদের সবার নামগুলো ১৩ টি অক্ষরের, তাই তাদের মধ্যে রয়েছে খারাপ মানুষের অতিব ছায়া। 

অষ্টম:

এমনকি মহাকাশেও ১৩ সংখ্যাটি একদম শুভ নয়। 

আরো একটি অবাক করা তথ্য সামনে আসে – মানব শরীরে নয়টি ছিদ্র রয়েছে এবং চারটি ব্যবহার যোগ্য অঙ্গ রয়েছে যা সব মিলিয়ে তেরো হয়। জীবন সেই নয়টি ছিদ্র দিয়ে প্রবেশ করে। আর সেই নয়টি ছিদ্র দিয়ে জীবন বেরিয়ে যায়। দুটি চোখ, দুটি নাকের গহ্বর, মুখ, দুটি কান, যৌনাঙ্গ এবং  মলদ্বার – এগুলি মিলিয়ে নয়টি গর্ত এবং চার অঙ্গ অর্থাৎ দুই হাত এবং দুটি পা। এই তেরো বা ১৩ নম্বরটি জীবনের সাথী এবং এই তেরোটিই আমাদের মৃত্যুর সঙ্গী। তাই এই তেরোই আপনাকে জীবন এনে দেয় এবং এই তেরোই আপনাকে জীবন থেকে ইহলোকে নিয়ে যায়।

Leave a Comment