Homemade সেরা ৫টি ওজন হ্রাস করার Recipes

Share It!

বর্তমান সময়ে চর্বি জমার কারণে অস্বাস্থ্যকর ওজন বৃদ্ধি অনেক লোকের জন্য উদ্বেগের বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। এই ওজন বৃদ্ধির প্রধান কারণগুলি হল আমাদের জীবনধারা, অস্বাস্থ্যকর ডায়েট, সঠিক অনুশীলনের অভাব, স্ট্রেস এবং বিপাকীয় ব্যাধি। সঠিক ডায়েট হল ওজনকে ঠিক রাখার মূল কারণ। কিছু দৈনন্দিন খাবার রয়েছে যা ওজন হ্রাস করতে সহায়তা করেএবং কিছু পানীয়ও আছে যা এই প্রক্রিয়াতে সহায়তা করে। যেমন আমরা গ্রিন টি, অ্যাপল সিডার ভিনেগার, কফি ইত্যাদি পানীয় ওজন হ্রাস করতে সাহায্য করে। অহেতুক ওজন বেড়ে যাবার জন্য হৃদরোগ, ডায়াবেটিস, অস্টিওআর্থারাইটিস, স্ট্রোক ইত্যাদি শরীরে দেখা যায়। শুধু তাই নয় সঠিক জীবনধারা বা ডায়েট বেশ কিছু নির্দিষ্ট ধরণের ক্যান্সারের মতো রোগের ঝুঁকি প্রতিরোধ করে।

সম্প্রতি, কয়েকটি বাড়িতে তৈরি ওজন হ্রাস পানীয় খুব জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। চর্বি বিভাজনের প্রক্রিয়াটিতে সহায়তা করার জন্য এগুলি সত্যই কার্যকর। এই ওজন হ্রাস পানীয়গুলি প্রস্তুত করার জন্য কয়েকটি সুপরিচিত পানীয় মিশ্রিত হয়। এই পানীয়গুলির প্রভাব শুরু করার জন্য নিয়মিত ব্যায়াম করা খুব গুরুত্বপূর্ণ। আসুন এখন আমরা জেনে নিন ৫টি ওজন হ্রাস করার সহজ Recipes

আদা-লেবুর মিশ্রিত পানীয় (Ginger lemon water)

উপকরণ:

আদা মূলের ১ ইঞ্চি, চুনের রস ১ চামচ, ভাজা জিরা গুঁড়ো ১ চামচ, ১ কাপ / ২৫০ মিলি ঠান্ডা জল।

প্রণালী:

আদা ছোট টুকরো টুকরো কেটে তাকে বেটে নিন  করা হয়, ঠান্ডা জলের সাথে মিশ্রণ করুন। পুরোপুরি মিশ্রিত  না হওয়া পর্যন্ত এই উপাদানগুলি মিশ্রিত করতে থাকুন। আদা জল একটি গ্লাসে ঢালা হয়।  এবার এই মিশ্রনের মধ্যে ভাজা জিরা গুঁড়া এবং চুন রস যোগ করা হয়। খাওয়ার আগে উপকরণ গুলো ভাল করে মিশিয়ে সেবন করুন।

Read More:  ওজন বাড়ছে ? ঘরে বসে মেয়েদের ওজন কমানোর ৬ টি সেরা উপায়

আরো পড়ুন: [CORN] কর্ন খাওয়ার ৫টি উপকারিতা। সাথে ২টি সহজ Recipe

দারুচিনির মধুর মিশ্রণ (Cinnamon and honey mix)

উপকরণ:

১ টেবিল চামচ মধু, ২ চা চামচ দারুচিনি, ১ কাপ বা ২৫০ মিলি গরম জল

প্রস্তুতি:

প্রথমে জল গরম করুন। জল উত্তপ্ত হলে এতে দারচিনি যোগ করা করুন। এরপরে ওই মিশ্রিত জলে ১চামচ মধু যোগ করুন। একটা কথা মনে রাখবেন জলে মধু যোগ করার আগে কমপক্ষে ১৫ মিনিট  জলকে ঠান্ডা করতে দেবেন। মধুতে উপকারী এনজাইমগুলো গরম জলে নষ্ট হয়ে যায়, এই কারণে জল অবশ্যই ঠান্ডা করতে হবে। উপাদানগুলি মিশ্রিত করে এবার সেবন করুন।

এই মিশ্রণটি আপনি পরের দিনও খেতে পারেন। তার জন্য ফ্রিজে মধ্যে সংরক্ষণ করা যেতে পারে। প্রাতঃরাশের 30 মিনিট আগে এই পানীয়টি গ্রহণ করার চেষ্টা করবেন।

আরো পড়ুন: পেটের মেদ কমানোর সেরা ১৫ টি উপায়

শসা দিয়ে পার্সলে (Cucumber aloe with parsley)

উপকরণ:

১ টি শসা, কয়েকটি পার্সলে পাতা, ১ টি লেবু, গ্রেটেড আদা ১ চা চামচ, অ্যালোভেরার রস ১ টেবিল চামচ, এক কাপ (১২৫ মিলি) জল।

প্রণালী:

সমস্ত উপাদান একসাথে মিশ্রিত করুন। আপনি চাইলে কয়েকটি আইস কিউব যুক্ত করে এটি পান করতে পারেন।

এই পানীয়টি ঘুমোতে যাওয়ার আগে খাওয়া উচিত। মনে রাখবেন এই পানীয়টি গ্রহণের পরে কোনও কিছু খাবেন না। এই পানীয় বিপাক পক্রিয়ায় সাহায্য করে। অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে সমৃদ্ধ হওয়ায় এটি বৃদ্ধিতে বিলম্বিত করে। এই পানীয়টি পেটের মধ্যে এবং হাতের পেশীতে ফ্যাট কমাতে কার্যকর।

আরো পড়ুন: Meditation এর উপকারিতা। কৌশল। সময়

হলুদ দারুচিনি একসাথে পান করুন (Turmeric with cinnamon drink)

উপকরণ: 

১ টেবিল চামচ হলুদ গুঁড়ো, ১ চা চামচ আদা বাটা, ১ চা চামচ কালো মরিচ, দারচিনি ২ টেবিল, ১ কাপ (আধা ২৫০ মিলি) জল।

প্রণালী:

কালো মরিচ জলের মধ্যে যোগ করে সেই জলটিকে ৫ মিনিটের জন্য ফোটান। পরে এই মিশ্রণে হলুদ গুঁড়ো মিশ্রিত করে এবং আগুনের  থেকে মিশ্রণটি সরিয়ে নিন। এবার একটি কাপে অদা বাটা নিয়ে তাতে ওই গরম  মিশ্রণটি ঢেলে দিন। পান করার আগে 5 মিনিট অপেক্ষা করুন।

Read More:  Weight Loss: 40 বছরের পরেও কীভাবে আপনার ওজন নিয়ন্ত্রণ করবেন

এই পানীয়টি প্রতিদিন সকালে খালি পেটে এবং রাতে ঘুমানোর সময় খাওয়া উচিত। এই মিশ্রণটি ওজন হ্রাস প্রক্রিয়া সহজ করার জন্য খুব সহায়ক। এই পানীয়টির সেবনের সাথে যদি নিয়মিত শরীর চর্চা অনুশীলন করা যায় এবং সঠিক ডায়েট সহ গ্রহণ করা যায় তবে সিক্স প্যাক অ্যাবস অর্জন করা যেতে পারে। এটি ত্বকের আভাও অনেকাংশে বাড়ায়। অবিশ্বাস্যভাবে, ত্বকের প্রভাব তিন দিনের মধ্যে দৃশ্যমান হতে পারে।

আরো পড়ুন: জাঙ্ক ফুড শরীরে কিরকম প্রভাব ফেলতে পারে – জানুন ৯টি সমস্যা

গাঢ় চকোলেট সাথে কফি (Dark chocolate with coffee)

উপকরণ: 

১ চামচ কালো কফি, ৩/৪ চামচ গ্রেটেড ডার্ক চকোলেট, ১/২ চামচ গ্রাউন্ড ফ্লাক্সসিডস, 1 কাপ (250 মিলি) জল।

প্রণালী:

একটা কাপে কালো কফি নিয়ে তাতে গরম জল ঢালুন। ফ্লেক্সসিড গুলো যুক্ত করে ভালোভাবে মিশ্রিত করুন। এবার গাঢ় চকলেট উপরে ঢেলে ভালো করে নাড়তে থাকুন এবং নেড়ে নেওয়ার পরে আস্তে আস্তে সেবন করুন।

আরো পড়ুন: Antilia – বিশ্বের দ্বিতীয় ব্যয়বহুল বিল্ডিং 

Leave a Comment