হটাৎ মাথা ব্যাথা ? মাথা ব্যাথা সারিয়া ফেলার ৩টি সহজ যোগা [YOGA]

Share It!

মাথা ব্যাথা আমদের সকলের জীবনের একটি সাধারণ সমস্যা। আমরা সকলেই বিভিন্ন সময় মাথা ব্যাথাতে ভুগে থাকি। মাথা ব্যাথা আমদের কারণে অকারণে হয়ে থাকে এবং আমরা অনেকেই বিভিন্ন ভাবে মাথা ব্যাথা দুরকরার চেষ্টা করি। মাথা ব্যাথা হবার কিছু শারীরিক বা পরিবেশগত সাধারণ কারণ হয়ে থাকে।  

আমরা মাথা ব্যথা ঠিক করতে অনেক কিছুই করে থাকি যেমন বিভিন্ন ওষুধ খাই বা বিভিন্ন ধরনের হোম রেমিডি করে থাকি, কিন্তু সহজ কিছু উপায়ে আমাদের মাথা ব্যাথা ঠিক করতে পারি।

মাথা ব্যথার সাধারণ কারণ

শারীরিক অসুস্থতা

আপনারা যদি শরীর অসুস্থ থাকে তাহলে আপনার মাথা ব্যাথা হতে পারে। আপনি যদি জ্বর বা ঠান্ডা লাগাতে ভুগছেন থাকলে আপনার মাথা ব্যথা হতে পারে বা আপনার যদি চোখের কোনো সমস্যা থেকে থাকে তাহলেও আপনি প্রায়শই কম বেশি মাথা ব্যাথাতে ভুগবেন।

স্ট্রেস (Stress)

অফিসে অত্যাধিক কাজের চাপ, সংসারে হাজারো ঝামেলা, বিভিন্ন শারীরিক সমস্যার কারণে আমাদের মধ্যে একটা মানসিক চাপের সৃস্টি হয়। আর এই মানসিক চাপ এই মাথা ব্যাথার কারণ হয়ে দাঁড়ায়।

আপনি যদি হতাশার কারণে অ্যালকোহল ব্যাবহার করেন, ঠিক করে খাবার না খান বা আপনার ঠিক ভাবে ঘুম না হয় তবে আপনারা মাথা ব্যাথা হতে পারে।

আপনি যদি কোনো বিষয় এর উপরে খুব বেশি ভাবেন বা মানসিক দুর্বলতাই ভুগেন তবে আপনার মাথা ব্যাথা হতে পারে। মাথা ব্যথার অনেক কারণ গুলির মধ্যে স্ট্রেস হলো একটি অন্যতম কারণ।

অস্বাভাবিক পরিবেশ

আপনি যদি একটি অসুস্থকর পরিবেশ এ বসবাস করেন তাহলে আপনার মাথা ব্যাথা অনিবার্য তামাক, সিগারেট এবং বিভিন্ন ধরনের নেশা যদি আপনি না করেন কিন্তু আপনি নেশার পরিবেশে বসবাস করছেন তাহলে আপনার মাথা ব্যথা হবে। আবার আপনি যদি এমন জায়গায় বসবাস করেন যেখানে  যানবাহন এর সংখ্যা বেশি বা সেখানে অনেক শব্দ হয় তবে সেখানেও আপনার মাথা ব্যাথা হয়ে থাকতে  পারে

Read More:  সূর্য নমস্কার: এই ৫ টি সূর্য নমস্কার আসন করলে পাবেন চমৎকার ফল

পারিবারিক

মাথা ব্যথার অন্যান্য কারণের মধ্যে এটি অন্যতম। মাথা ব্যাথা বেশীর ভাগ পারিবারিক সমস্যার কারণে হয়ে থাকে। আপনারা বাড়িতে কারোর যদি মাথা ব্যাথা আগের থেকে থাকে তবে আপনার মধ্যে মাথা ব্যথার সম্ভাবনা ৯০ %। 

আরও পড়ুন: ব্ল্যাক ফাঙ্গাসের আক্রান্তের কারণ, লক্ষণ, চিকিৎসা, সাবধানতা

মাথা ব্যাথা ঠিক করার জন্য কিছু কিছু সহজ যোগা (Yoga) রয়েছে যেগুলো করলে আমরা সহজেই মাথা ব্যথা থেকে মুক্তি পেতে পারি।

অর্ধকূর্মাসন আসন

২. পদ্মসানা আসন

৩. শীর্ষ আসন 

আসন করার সঠিক সময়

শুধু মাত্র অর্ধকূর্মাসন ইত্যাদি সমস্ত যোগা (Yoga) বা আসন করার আদর্শ সমই হচ্ছে ভোর বেলা। আবার আসন গুলি বিকেল বেলায়ও করা যেতে পারে। আমদের যখন মাথা ব্যাথা হয় তখনও আমরা এই আসন যদি করি তাহলে সাময়িক আরাম পাওয়া যাবে। 

অর্ধকূর্মাসন আসন 

আর্ধকুর্মা আসন করলে আমদের শরীর এর অনেক উপকারীতা হয়। এই আসন করলে আমদের শরীর এর মেদ কমে, পায়ের ব্যাথা কমে যায়, মাথা ব্যাথা কমে, শরীর এর দূর্বলতা কমে যায়। 

এই আসন করার ফলে আমদের মাইগ্রেন এর সমস্যা দুর হয়ে যায়। মাথা ব্যাথা কমানোর একটি সহজ আসন হলো এই আসন।

আর্ধকূর্মা আসনের পক্রিয়া (Steps)

. আপনি সোজা দাড়াবেন

. তারপর হাঁটু ভাজ করে পা এর  উপরে বসবেন

. এবার আপনার হাত গুলো কানের পাশ থেকে সোজা উপরে উঠিয়ে নমস্কার করবেন

.  তারপর আস্তে করে আপনার মাথা মাটির সাথে স্পর্শ করবেন। মনে রাখবেন আপনার মাথা এবং আপনার নাক যেনো অবশ্যই মাটির সাথে ঠেকে থাকবে

আরও পড়ুন: Lockdown মানসিক স্বাস্থ্যকে দৃঢ় করার ৮ টি সুপারফুড

পদ্মসানা আসন 

মাথা ব্যাথা সরানোর জন্য আমরা পদ্মসানা আসন করে থাকি। মাথা ব্যথা কমাতে যতটা সম্ভব মাথা নামিয়ে রাখার Yoga করা উচিত।মাথা ব্যাথা সারিয়া ফেলার ৩টি সহজ যোগা [YOGA]

Read More:  Memory Loss: স্মৃতিশক্তি কি দুর্বল হয়ে যাচ্ছে? স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধির উপায়

পদ্মসানা আসনের পক্রিয়া (Steps)

. সোজা হয়ে দরাবেন,

. পা জোড়া করে দাড়াবেন,

. তারপর হাত উপড়ে করে মাথা নিচের দিকে নামিয়ে দেবেন,

. মাথা হাটুতে ঠেকানোর চেষ্টা করবেন।

. আপনার হাত পা এর পাতার পাশে রাখবেন

শীর্ষ আসন

শীর্ষ আসন এর অনেক উপকারীতা আছে।  এই আসন করার ফলে আমদের মস্তিস্কের স্মৃতি শক্তি বাড়ে, মাথা ব্যাথা সেরে যায়।  

এছাড়াও পুরো শরীরের রক্ত চলাচল বাড়ে এবং মাইগ্রেন এর সমস্যা দুর হয়।

 শীর্ষ আসনের পক্রিয়া (Steps)

. হাটু ভাজ করে পা এর উপরে বসে,

. মাথা মাটিতে নামতে হবে,

. তারপর মাথার কাছে হাত রাখতে  হবে,

. তারপর হাতের উপরে ভর দিয়ে মাথা নিচু করে পা তুলে দিতে হবে

আরও পড়ুন: যোগের ২০টি উপকারিতা, ওজন কমাতে যোগার উপযোগিতা

আরও পড়ুন:  টেনশন কমানোর ১৪টি সহজ উপায়

Leave a Comment