বিশ্বের সবচেয়ে শান্তিপূর্ন প্রথম ১০ দেশ

Share It!

একবিংশ শতাব্দীর মাঝে দাঁড়িয়ে প্রতিটি মানুষ প্রতিনিয়ত খুঁজে চলেছেন একটু শান্তি। বর্তমানে এই পৃথিবীর বেশিরভাগ দেশ অরাজকতায় জর্জরিত। এরই মাঝে দাঁড়িয়ে আজ আমরা জানবো পৃথিবীর সবচেয়ে শান্তিপূর্ণ দশটি দেশের কথা

The Institute For Economic and Peace এর তত্ত্বাবধানে তৈরী Global Peace Index এর তালিকা অনুযায়ী বিশ্বের সবচেয়ে শান্তিপূর্ন দেশের তালিকায় প্রথম দশ স্থানাধিকারীর নাম।

10. সুইজারল্যান্ড (Switzerland)

শান্তিপূর্ণ দেশ গুলির তালিকার মধ্যে অন্যতম এই দেশ যার সৌন্দর্য পৃথিবী বিখ্যাত।পশ্চিম ইউরোপের মধ্যভাগে অবস্থিত এই দেশ আল্পস পর্বতে ঘেরা।সুইজারল্যান্ড আয়তন ৪১ হাজার ২৮৫ বর্গকিলোমিটার। এই দেশের জনসংখ্যা প্রায় ৮৪ লক্ষ।

সুইজারল্যান্ডের রাজধানী বার্ন। এই দেশের অন্যতম বৃহত্তম শহর জুরিক। এই দেশের প্রধান ভাষা চারটি জার্মান, ফরাসি, ইতালি ও রোমান।  এই দেশের প্রধান জীবিকা মূলত পর্যটন।

নয়নাভিরাম এই দেশে বছরের বিভিন্ন সময় পর্যটকরা ভিড় জমান। এপ্রিল থেকে জুন এবং সেপ্টেম্বর ও অক্টোবর ভ্রমণের উপযুক্ত সময়। এখানে ভ্রমণের জন্য মাথাপিছু খরচ ১.৫ লক্ষ। 

09. জাপান (JAPAN)

 

প্রশান্ত মহাসাগরের পূর্ব দিকে অবস্থিত ৬৮৫২ টি দেশ নিয়ে গঠিত এই জাপান দেশ। Global Peace Index এর তালিকা অনুযায়ী জাপান শান্তিপূর্ণ দেশের তালিকায় নবম স্থান অধিকার করেছে। দেশটি একটি ভূমিকম্প প্রবন দেশ। ভূমিকম্প এখানকার মানুষের জীবনের একটি সাধারণ ঘটনা। ৩ লক্ষ ৭৭ হাজার ৯৭২ বর্গকিলোমিটার এই দেশটির মোট জনসংখ্যা প্রায় ১৩ কোটি। জাপান বিশ্বের অন্যতম জনবহুল দেশ। তবে সামাজিক ও সামরিক দিক দিয়ে দেশটি বেশ শান্তিপূর্ণ।

জাপানের রাজধানী টোকিও এখানকার বৃহত্তম ও জনবহুল শহর। এখানকার মানুষের প্রধান জীবিকা কার্পাস বস্ত্রবয়ন। দেশটির প্রাকৃতিক সৌন্দর্য কিছু কম নয়। জাপান কে উদীয়মান সূর্যের দেশ বলা হয়।

এই দেশ ভ্রমণের উপযুক্ত সময় জুন থেকে অক্টোবর মাস। এখানে মাথা পিছু থাকা ও খাওয়ার খরচ ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৩ লক্ষ টাকা।
 

08. চেক রিপাবলিক (CZECH REPUBLIC) 

মধ্য ইউরোপের একটি সুন্দর দেশ চেক রিপাবলিক। এই দেশের আয়তন প্রায় ৭৮ হাজার ৮৫৫ বর্গকিলোমিটার। এই দেশের জনসংখ্যা প্রায় ১কোটি ৫৫ লক্ষ ৩৪ হাজার। এই দেশের রাজধানী প্রাগ। প্রাগ ই এই দেশের প্রাণকেন্দ্র। এই দেশের ভাষা চেক ভাষা।

Read More:  Inverter AC: ইনভার্টার AC এবং নরমাল AC এর মধ্যে পার্থক্য কোথায় ? জানুন কোন AC টা কেনা আপনার জন্য বেশী লাভজনক

এই দেশ সামাজিক ও প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে অতন্ত্য সমৃদ্ধ। এই দেশের শিক্ষা ব্যবস্থা অত্যন্ত উন্নত। এই দেশের প্রধান জীবিকা পর্যটন শিল্প। এই দেশের নানা সময় পর্যটক ভিড় করেন।

এই দেশে ভ্রমণের উপযুক্ত সময় জুন থেকে আগস্ট। খরচ মাথা পিছু ৩.৫ লক্ষ। ফ্রান্টসেক বুরিয়ান এবং আর্নল্ড জিরামেক এখানেই প্রথম প্লাস্টিক সার্জারি প্রচলন করেন।

07. সিঙ্গাপুর (SINGAPORE)

দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার সামুদ্রিক দ্বীপ শহর সিঙ্গাপুর, এটি মালয় উপদ্বীপের দক্ষিণ দিকের নিরক্ষীয় অঞ্চলের উত্তরে  অবস্থিত একটি সুন্দর দেশ। এই দেশকে officially Republic of Singapore বলা হয়। এই দেশের আয়তন প্রায় ৭২৮ বর্গকিলোমিটার। এই দেশের জনসংখ্যা প্রায় ৫৭ লক্ষ ৮০০০ হাজার। এই দেশের রাজধানী সিঙ্গাপুর এই দেশের প্রাণকেন্দ্র।

এই দেশের জাতীয় ভাষা হলো মালয়।সিঙ্গাপুরের বন্দর অঞ্চল, বিশ্বের অন্যতম বৃহত অঞ্চল, 36 বর্গমাইল (93 বর্গকিলোমিটার) জুড়ে এটি অবস্থিত। বন্দরের প্রধান আমদানিগুলির মধ্যে রয়েছে যন্ত্রপাতি, টেক্সটাইল এবং চাল। ব্যাংকক এবং কুয়ালালামপুর থেকে মালায়ান রেল ব্যবস্থা সিঙ্গাপুরে শেষ হয়।

সিঙ্গাপুর – “পার্বত্য শহর” বা “গার্ডেন সিটি” নামে পরিচিত, এখানে  অনেক Park আছে এবং রাস্তার দুধারে সারিযুক্ত গাছের শোভা অপরূপ সৌন্দর্যের সৃষ্টি করে। এখানে দেশ বিদেশ থেকে বহু পর্যটক এখানে আসেন।যদিও সিঙ্গাপুরে সারা বছর ঘুরতে যাওয়া যায়, তবে সিঙ্গাপুর ভ্রমণের সেরা সময় ডিসেম্বর থেকে জুনের। এখানে মাথা পিছু থাকা ও খাওয়ার খরচ ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৭৫ হাজার টাকা ১৫দিনের জন্য।

06. কানাডা (CANADA) 

উত্তর আমেরিকার উত্তর অঞ্চলে অবস্থিত অন্যতম এই শান্তিপূর্ণ দেশ কানাডা। কানাডায় অপরাধের হার খুবই কম। ৯৯ লক্ষ ৮৪হাজার ৬৭০ বর্গকিলোমিটার আয়তনের এই দেশের জনসংখ্যা প্রায় ৩কোটি ৫৬ লক্ষ্ ৭৫ হাজার ৮৩৪ জন। দেশটির রাজধানী অটোয়া। আমরা প্রায় সকলেই জানি যে বিখ্যাত নায়াগ্রা জলপ্রপাত এই কানাডাতেই অবস্থিত।

দেশটির সবচেয়ে বৃহত্তম শহর টরেন্টো। এই দেশের সরকারি ভাষা মূলত ইংরাজি এবং ফরাসি। এই দেশের প্রধান জীবিকা তেল এবং গ্যাস উৎপাদন এবং পর্যটন। এই দেশের নায়াগ্রা ফলসের কারণে বিশেষ জনপ্রিয়।

বছরের বিভিন্ন সময় বহু পর্যটক এই ফলসের আকর্ষণেই এখানে আসে। এখানে ভ্রমণের উপযুক্ত সময় সেপ্টেম্বর থেকে নভেম্বর। এখানে মাথাপিছু থাকা খাওয়ার খরচ ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ২.৫ লক্ষ টাকা।

Read More:  5G Technology কি। 5G Network এর ক্ষতিকারক দিক

আরও পড়ুন: মানসিক স্বাস্থ্যকে দৃঢ় করার ৮ টি সুপারফুড

05. ডেনমার্ক (DENMARK)

Global Peace Index অনুযায়ী শান্তিপূর্ণ দেশের তালিকায় 5th স্থানে আছে ডেনমার্ক। উত্তর পশ্চিম ইউরোপের একটি দ্বীপ রাষ্ট্র ডেনমার্ক। দেশটির আয়তন ২২ লক্ষ ৫০ হাজার ৯৩০ বর্গকিলোমিটার । এখানকার জনসংখ্যা প্রায় ৬০ লক্ষ। 

এখানকার রাজধানী কোপেনহেগেন। দেশটির  সাগরের কাছাকাছি হওয়ায় এর জলবায়ু অতন্ত্য মনোরম। এখানকার মানুষের প্রধান জীবিকা আয়রন, স্টিল নির্মাণ এবং বিদ্যুৎ শক্তি। এখানেও অপরাধের সংখ্যা খুব কম।

এখানে ভ্রমণের সবচেয়ে সুন্দর সময় জুন থেকে আগস্ট মাস। এখানে ১৫দিনের থাকা খাওয়ার খরচ মাথাপিছু প্রায় ১.৫ থেকে ২ লক্ষ টাকা।  বিখ্যাত লেখক  হান্স ক্রিশ্চিয়ান এন্ডারসন এই ডেনমার্কে জন্মগ্রহণ করেছিলেন।

04. অস্ট্রিয়া (AUSTRIA)

শান্তিপূর্ণ দেশের তালিকায় তৃতীয় স্থান অধিকার করেছে অস্ট্রিয়া। পশ্চিম ইউরোপের এই দেশটির বেশিটাই স্থল বেষ্টিত। চারিদিক পর্বতে ঘেরা দেশটির আয়তন ৮৩ হাজার ৮৭৯ বর্গকিলোমিটার। দেশটির জনসংখ্যা প্রায় ৮৯ লক্ষ। দেশটির সরকারি ভাষা জার্মান।

দেশটির রাজধানীর ভিয়েনা অত্যন্ত সমৃদ্ধশালী শহর।দেশের মানুষের মধ্যে অপরাধ প্রবণতা ও নরহত্যার হার প্রায় নেই বললেই চলে। এই দেশের প্রধান জীবিকা মূলত খাদ্য শিল্প, স্টিল কনস্ট্রাকশন, কেমিক্যাল এবং গাড়ি তৈরির ওপর নির্ভরশীল। দেশটির শিক্ষকতার হার প্রায় ৯৯ শতাংশ। দেশটির সৌন্দর্যের কারণে বছরের অনেক সময় পর্যটকরা ভিড় জমান। 

এখানে ভ্রমণের উপযুক্ত সময় বসন্ত কাল। চারিদিক ফুল এবং সবুজে ঘিরে থাকে। বরফাবৃত অস্ট্রিয়া দেখতে গেলে আসতে হবে সেপ্টেম্বর থেকে অক্টোবর মাসে। ১৫দিন এর জন্য মাথাপিছু খরচ প্রায় ২.৫ লক্ষ টাকা।

03. পর্তুগাল (PORTUGAL) 

দক্ষিণ পশ্চিম ইউরোপের একটি রাষ্ট্র পর্তুগাল। প্রায় ৯২হাজার ২১২বর্গকিলোমিটার জায়গা জুড়ে অবস্থান করে এই দেশ।  এই দেশের মোট জনসংখ্যা প্রায় ১কোটি ১০ লক্ষ। শান্তিপূর্ণ দেশগুলির মধ্যে অন্যতম এই দেশের রাজধানী লিজবন। দেশটির প্রধান ভাষা পর্তুগিজ। এই দেশের জলবায়ু অত্যন্ত মনোরম।

এই দেশের প্রধান জীবিকা বস্ত্রবয়ন, কেমিক্যাল, অটো পার্টস তৈরি। এই দেশের প্রধান খেলা ফুটবল।পৃথিবী বিখ্যাত ফুটবলার ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ড এই দেশের বাসিন্দা। এই দেশের প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের জন্য এখানে পর্যটন শিল্প ও বেশ উন্নত।

এখানে ভ্রমণের উপযুক্ত সময় সেপ্টেম্বর থেকে অক্টোবর। এই দেশে ভ্রমণের জন্য মাথাপিছু খরচ প্রায় ১.৫ লক্ষ টাকা।

আরও পড়ুন: যোগের [YOGA] ২০টি উপকারিতা

Read More:  ঘড়ির কাঁটা কেন ১০:১০-এ থাকে, জেনে নিন রহস্য

02. নিউজিল্যান্ড (NEWZELAND)

দক্ষিণ পশ্চিম প্রশান্ত মহাসাগরের ওশিয়ানিয়া অঞ্চলের অন্তর্গত নিউজিল্যান্ড একটি দ্বীপ রাষ্ট্র। ২লক্ষ ৬৮ হাজার ২১ বর্গকিলোমিটার আয়তনের এই দেশটির জনসংখ্যা প্রায় ৫০ লক্ষ। দেশটির প্রধান ভাষা ইংরাজি। দেশটির রাজধানী ওয়েলিংটন।

তীব্র সামুদ্রিক জলবায়ু এই দেশটির গড় তাপমাত্রা ১০°-১৬° সেলসিয়াস। অসাধারণ প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের অধিকারী এই দেশের মানুষের প্রধান জীবিকা দুগ্ধজাত দ্রব্য উৎপাদন, মাংস ও এগ্রিকালচার প্রোডাকশন।

এই দেশ ভ্রমণের উপযুক্ত সময় ডিসেম্বর থেকে মার্চ। মাথাপিছু খরচ প্রায় ১.৫ থেকে ২ লক্ষ টাকা। প্রথম এভারেস্ট বিজয়ী এডমন্ড হিলারি এই দেশের বাসিন্দা ছিলেন।

01.আইসল্যান্ড (ICELAND) 

পৃথিবীর সবচেয়ে শান্তিপূর্ণ দেশের নাম হলো এই আইসল্যান্ড। উত্তর আটলান্টিক মমহাসাগরে অবস্থিত এই দেশ। এই দেশের আয়তন ১ লক্ষ ৩০০০ বর্গকিলোমিটার। এখানকার জনসংখ্যা প্রায় ৩ লক্ষ্য ৫০ হাজার । এই দেশের রাজধানীর নাম রিকজাভিক। এখানকার জনসংখ্যার প্রায় অর্ধেক লোক ই এই শহরে বসবাস করেন।

দেশটির প্রধান ভাষা আইসল্যান্ডিক। দেশটির জলবায়ু রুক্ষ প্রকৃতির হওয়ার কারণে এখানে চাষবাস তুলনায় কম। এই দেশ সমুদ্র তীরবর্তী হওয়ার কারণে এখানকার মানুষের প্রধান জীবিকা মৎস্য চাষ ও প্রতিপালন। এদেশের অপরাধ সংখ্যা এতই কম যে এখানকার পুলিশ বেশিরভাগ সময়ই নিরস্ত্র থাকেন।

অসাধারণ এই প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের অধিকারী দেশটি পর্যটন শিল্পের জন্য ও বিশেষ জনপ্রিয়। গ্রীষ্ম , শরৎ এবং বসন্ত প্রায় সব সময়েই এখানে ঘুরতে আসা যায়। জুলাই থেকে অক্টোবর এই সময়ই মধ্যরাতে আকাশে এখানে অরোরা দেখতে পাওয়া যায় । ১৫ দিনের জন্য এখানে থাকা ও খাওয়ার খরচ ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ১.৫ লক্ষ টাকা।

আরও পড়ুন:  করোনা ভাইরাসের এর দ্বিতীয় স্ট্রেনে আক্রান্ত হবার লক্ষণ

Leave a Comment