কিডনি [Kidney] সুস্থ রাখার ১২টি সহজ উপায়

Share It!

কিডনি (kidney)মানুষের জীবনে একটি খুব গুরুত্বপূর্ণ্য অঙ্গ। কিডনি বিকল হয়ে যাওয়া মানে জীবন এক দুর্বিসহ সমস্যার সম্মুখীন হয়।কিডনি(Kidney) কিভাবে ভালো রাখবেন। জেনে নিন কিছু উপায়। 

কিডনি আমাদের শরীরের একটি অপরিহার্য অঙ্গ হিসাবে বিবেচিত। তাই কিডনি কে ভালো রাখার উপায় আমাদের জেনে রাখতে হবে। আমাদের দেশে কিডনি রোগাক্রান্ত মানুষের সংখ্যা বেড়েই চলেছে তাই প্রথম থেকেই এই কিডনিকে সুস্থ এবং স্বাভাবিক রাখার চেষ্টা করতে হবে।

    কিডনি (Kidney) কি ?



    কিডনি এর ওপর নাম বৃক্ক। কিডনি আমাদের শরীরের অত্যন্ত গুতুত্বপূর্ন্য অঙ্গ। কিডনি হলো আমাদের শরীরের ভিতরে থাকা বিনের আকারে একটি অঙ্গ। কিডনি আমাদের শরীরে লিভার এর পিছনে মেরুদণ্ড এর দুপাশে অবস্থান করে। মানুষের শরীরে ২টি কিডনি থাকে। 

    কিডনির (Kidney) কাজ কি ?


    কিডনিকে আমাদের শরীরের ছাকনি বলা হয় কারণ কিডনি প্রায়ই মিনিটে ১/২ কাপ রক্ত পরিশ্রুত করে থাকে। এটি আমাদের শরীরে অতিরিক্ত জল এবং বর্জ্য পদার্থ্য ছেকে বার করে দেয়। আর এই অতিরিক্ত জল প্রস্রাব আকারে আমাদের শরীর থেকে বের হয়ে যায়। এইভাবে কিডনি আমাদের শরীরের জলের ভারসাম্য বজায় রাখে।  

    কিডনি (Kidney) এতো গুরুত্বপূর্ন্য অঙ্গ কেন

    কিডনি আমাদের শরীরের দূষিত বর্জ্য পদার্থ এবং অতিরিক্ত জল বার করে শরীরের চলনশক্তি বজায় রাখতে সাহায্য করে। 

    শরীরের ভারসাম্য বজায় রাখতে প্রয়োজনীয় হরমোন এবং পুষ্টির যোগান দেয়। 

    রক্ত্যকেও পরিশ্রুত করতে সাহায্য করে। কিডনি তার কর্মক্ষমতা হারালে মানুষ মৃত্যুর দিকে এগিয়ে যায় আস্তে আস্তে। তাই কিডনি ছাড়া আমরা একদম অচল হয়ে পড়বো। 

    Read More:  Stress: স্ট্রেস এবং টেনশন কমানোর ১৪টি সহজ উপায়

    কিডনি (Kidney) খারাপ হবার লক্ষণগুলি কি


    কিডনি বিকল হতে শুরু করলে সাধারণত এই লক্ষণ গুলো চোখে পড়ে 

    • পিঠের দুপাশে মাঝে মাঝে বেথা অনুভব হবে। 

    • প্রস্রাব কম হবার লক্ষণ দেখা যাবে। 

    • খিদে পাবার প্রবণতা যাবে আস্তে আস্তে। 

    • সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর চোখে ফোলা ভাব দেখা যাবে। 

    • সামান্য হাটাচলাতে শরীরে ক্লান্তি ভাব দেখা দেবে। 

    • পা ফুলে যাবার একটা প্রবণতা চোখে পড়বে। 

    তাই এই রকম লক্ষণ আপনার শরীরে দেখা দিলেই সত্তর ডাক্তার এর সাথে পরামর্শ করা উচিত এবং ডাক্তার এর পরামর্শ নিয়ে চিকিৎসা শুরু করা দরকার। 

    আরও পড়ুন:  Meditation এর উপকারিতা। সাবধানতা

    কিডনি (Kidney) সুস্থ রাখার উপায় 

    ১. আমরা জানি জলের অপর নাম জীবন এবং এই জল কিডনি ভালো রাখার প্রথম ওষুধ। শরীরে জলের পরিমান সঠিক থাকলে কিডনির রোগ কিছুটা হলেও দূরে রাখা যায়। বয়স্ক মানুষের প্রতিদিন গড়ে ৩-৪ লিটার জলের প্রয়োজন হয়।

    ২. কিডনি বিকল হয়ে যাবার মুখ্য একটি কারণ হলো অতিরিক্ত ধূমপান। তাই যথাসম্ভব ধূমপান এড়িয়ে চলতে হবে। একজন Non-smoker এর থেকে একজন smoker এর কিডনি আক্রান্ত হবার প্রবণতা অনেক বেশি। 

    ৩. যখন তখন ব্যাথার ওষুধ খাওয়া কিডনি পক্ষে ক্ষতিকারক। তাই সবসময় ডাক্তার এর পরামর্শ নিয়ে ব্যাথার ওষুধ খাওয়া উচিৎ। 

    ৪. আমাদের শরীরের এই গুরুত্বপূর্ন্য অঙ্গটিকে সুস্থ রাখতে প্রতিদিন শরীরচর্চার অভ্যেস করে ফেলতে হবে। রোজ কোনো একটা নির্দিষ্ট সময় যোগ ব্যায়াম করা দরকার,শরীরের ওজনকে বয়সের তুলনায় সঠিক রাখা একান্ত প্রয়োজন। 

    ৫. প্রতিদিন পর্যাপ্ত সময় ঘুমানো একান্ত দরকার। একজন মানুষকে গড়ে দিনে ৬ থেকে ৭ ঘন্টা ঘুমানো খুব প্রয়োজন। 

    কিডনি (Kidney) সুস্থ রাখার জন্য খাদ্য তালিকা 

    কিডনিকে সুস্থ রাখতে আমাদের খাদ্য তালিকার উপর নজর রাখতে হবে। প্রথমেই জানা আছে আমাদের পর্যাবত্য পরিমান জল খেতে হবে। 

    Read More:  High Blood Pressure: উচ্চ রক্তচাপকে নিয়ন্ত্রণ করতে এই ৫টি খাবার অবশই ডায়েট রাখুন

    প্রতিদিন খাদ্য তালিকায় বেশ কিছুটা Vitamin C রাখতে হবে। মুসুম্বি লেবু, কমলা লেবুর মধ্যে প্রচুর পরিমান Vitamin C থাকে। 

    প্রচুর শাকসবজি এবং ফল খেতে হবে। আপেল এবং blueberry এইসবও এর জন্য খুব উপকারী। 

    মিষ্টি আলুও সুস্থ কিডনির জন্য উপকারী। 

    এছাড়াও কিডনিকে সুস্থ রাখতে মাছ,ডিমের সাদা অংশ, পনির, কম ফ্যাট যুক্ত দুগ্ধ জাতীয় খাবার। 

    টকদই,ওটস ইত্যাদি খাওয়াও খুব ভালো কিডনিকে ঠিক রাখার জন্য। 

    এছাড়াও এই গুরুত্বপূর্ন্য অঙ্গটিকে সুস্থ রাখার জন্য আমাদের লো-পটাশিয়াম খাবার অন্তর্ভুক্ত করতে হবে। 

    কিডনিকে সুস্থ রাখতে যেসব খাবার থেকে দূরে থাকা উচিত 

    Avocado জাতীয় খাবার খাওয়ার পরিমান কমিয়ে ফেলতে হবে। 

    জাঙ্ক-ফুড যথা সম্ভব এড়িয়ে চলতে হবে। 

    উচ্চ ফ্যাট যুক্ত খাবার থেকে নিজেকে যথাসম্ভব দূরে সরিয়ে রাখতে হবে। 

    Soft drink যথাসম্ভব এড়িয়ে চলার অভ্যাস করতে হবে কারণ এতে প্রচুর পরিমান কেমিক্যাল যুক্ত থাকে যা আমাদের কিডনির জন্য অতন্ত ক্ষতিকারক।  

    আরও পড়ুন: মেয়েদের ওজন কমানোর সেরা ডায়েট চার্ট (Diet chart) 2021

    আরও পড়ুন: টেনশন কমানোর ১৪টি সহজ উপায়

    Leave a Comment