এই পাঁচটি লক্ষণ দেখতে পেলেই বুঝবেন আপনার কাছে বিপুল অর্থ আস্তে চলেছে

Share It!

আপনাকে যদি জিজ্ঞাসা করা হয়, আপনার কাছে এই পৃথিবীর মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ জিনিস কী? তাহলে বেশিরভাগ মানুষই এর উত্তরে বলবেন অর্থ। বর্তমানে যে সময় চলছে তাতে অর্থ এখন সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ন্য এবং অপরিচার্য্য জিনিস।

সম্মান এবং প্রকৃত ভালোবাসা ছাড়া বাকি সব কিছু পেতে যেকোন টাকা বা অর্থের প্রয়োজন। টাকা ছাড়া কোনো কিছু পাওয়া খুব মুশকিল। যে সময় চলছে তা হল কলিযুগের সময়, কলিযুগে জড় বস্তুর মহিমা আছে তবে আপনার কাছে অবশ্যই অর্থ থাকতে হবে। যে কাজের জন্য অর্থ উপার্জন করা প্রয়োজন বা অর্থ পাওয়া খারাপ কিছু নয় যদি আপনার উদ্দেশ্য সঠিক হয়।

rashikatha

আপনার জানা উচিত কীভাবে এটিকে সঠিকভাবে ব্যবহার করা যায়। অর্থের মাধ্যমে এই পৃথিবীতে সমস্ত ধরণের বস্তুগত জিনিস প্রাপ্ত করা যায় এবং শুধুমাত্র অর্থের জন্য একজন ব্যক্তি দিনরাত কঠোর পরিশ্রম করে। তবে সমস্ত মানুষের সমান টাকা না পাওয়ার কিছুটা কারণ হলো তাদের ভাগ্য।

যাঁর ভাগ্যে যে জিনিসগুলি লেখা আছে, সে কেবল সেগুলিই পায়। কিছু লক্ষণ আছে যা প্রত্যেক মানুষ টাকা পাওয়ার আগে পেয়ে যায়। কিন্তু আমরা সেগুলো ঠিক মতো জানিনা বা জানলেও অতটা পরোয়া করিনা।

এ রকম অনেক ধরনের লক্ষণ আমাদের শাস্ত্রে বলা হয়েছে যা জীবনে অর্থ আগমনের সংকেত হিসাবে বিবেচিত হয়। আজকের লেখাতে আমরা আপনাকে এমনই পাঁচটি লক্ষণের কথা বলব।

জানাবেন মা লক্ষ্মী আপনার বাড়িতে আসছেন – তার কিছু সংকেত আপনি আগে থেকে পাবেন, সেগুলো কি তাহলে জেনে নেওয়া যাক। সর্বোপরি, কী সেই পাঁচটি বড় লক্ষণ যা বলে যে এখন আপনার বাড়িতে মাতা লক্ষ্মীর আগমন ঘটতে চলেছে।

আমরা আপনাকে এমন পাঁচটি লক্ষণ জানাবো যে এই পাঁচটি লক্ষণের কোনোটি পেলেই বুঝতে হবে আপনার ধনী হওয়া এখন সময়ের অপেক্ষা মাত্র।

Read More:  AI in Agriculture: AI দিয়ে হবে চাষবাস, কিন্তু কিভাবে?

আরো পড়ুন: খাওয়ার ইচ্ছা কি কমে গেছে ? তাহলে শরীরে কি এই পুষ্টির অভাব আছে 

প্রথম লক্ষণ:

টিকটিকিকে দেখতে পেলে বা আপনার গায়ে পড়লে বলা হয় যে আপনার কাছে টাকা আস্তে চলেছে। অনেকে আছেন যারা টিকটিকি দেখে খুব খুশি হয়ে যান, আবার কিছু মানুষ আছে যারা টিকটিকিকে তাদের ঘরে ঢুকতে দেয় না আবার কেউ কেউ টিকটিকি মেরে ফেলে কিন্তু আমাদের শাস্ত্রে এটাকে ভালো বলা হয়নি, শিবকালী সম্পর্কে আমাদের শাস্ত্রে অনেক ভালো কথা বলা হয়েছে।

বন্ধুরা, সেই লক্ষণগুলির মধ্যে আরো একটি হল তুলসী গাছের চারপাশে টিকটিকি ঘোরাঘুরি করলে সেটা ভালো লক্ষণ। আমাদের শাস্ত্রে টিকটিকিকে দেবী লক্ষ্মীর প্রতীক হিসেবে ধরা হয়েছে।

যদি তুলসী গাছের চারপাশে টিকটিকি ঘুরে বেড়াতে দেখেন, তাহলে বুঝতে হবে এখন আপনার জীবনে টাকা আসছে, মা লক্ষ্মী এখন স্বয়ং সে আপনার ঘরে প্রবেশ করতে চলেছে। তাকে এমন অবস্থায় দেখা দেবী লক্ষ্মীর আগমনের লক্ষণ।

আরো পড়ুন: আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস – জানুন বিস্তারিত

দ্বিতীয় লক্ষণ:

আমাদের শাস্ত্রে স্বপ্নের অনেক গুরুত্ব রয়েছে। স্বপ্নে এই জিনিসটি দেখলে বুঝবেন ধনী হয়ে যাবেন। অনেকেই অনেক রকমের স্বপ্ন দেখেন, কিন্তু আপনাদের অবগতির জন্য বলে রাখি যে, জ্যোতিষ শাস্ত্র অনুযায়ী যদি আপনি যদি স্বপ্নে পেঁচা, ঝাড়ু, শঙ্খ, হাতি, সাপ এবং গোলাপ ফুল দেখেন তবে এটি সাধারণ স্বপ্ন নয়।

স্বপ্নে যদি এই জিনিসগুলির কোনওটি দেখেন তবে এটি মাতা লক্ষ্মীর আগমনের পূর্বের লক্ষণ। আপনি যদি বুঝতে পারেন যে এখন আপনার জীবনে দেবী লক্ষ্মী প্রবেশ করতে চলেছেন, ভাগ্য আপনাকে সমর্থন করবে, আপনি জীবনে উন্নতি লাভ করবেন , আপনার ঘরে সুখ-সমৃদ্ধি থাকবে।

আরো পড়ুন: আপনি কি ভয় পান ? জানুন ভয়কে দূর করার সহজ উপায়I

Read More:  নতুন বছর থেকে Google Pay, phonepe সব বন্ধ হতে চলেছে এইসব ব্যবহারকারীদের

তৃতীয় লক্ষণ:

অনেক বাড়িতে ছাদে বা কোনো বালকোনিতে পাখি বাসা বানায়। অনেক মানুষ আছে যারা তাদের ঘরে পাখির বাসা বানালে সেটিকে ভেঙে দেয়। এটি করা উচিত নয়। তাদের কখনই এই কারণে বিরক্ত করা উচিত নয়।

বন্ধুরা, জ্যোতিষশাস্ত্রে বলা আছে যে যদি আপনার দেয়ালে বা ছাদের কোণে যদি পাখি বাসা বানায়, তবে তা দেবী লক্ষ্মীর জন্য খুবই শুভ। আপনার বাড়িতে তৈরি বাসায় যদি একটি পাখি ডিম পাড়ে, তবে এটি দেবী লক্ষ্মীর আগমনের আগে এক ধরণের লক্ষণ। এবং যদি এর থেকে বাচ্চা জন্মায় তবে এর অর্থ হ’ল এখন আপনার ঘরে এখন টাকা বাড়তে চলেছে।

আরো পড়ুন: মেয়েদের গ্রীন টি [Green Tea] এর উপকারিতা। অপকারিতা

চতুর্থ লক্ষণ:

ধুলো বা ময়লা সাফ করার জন্য প্রতিটি বাড়িতে ঝাড়ু ব্যবহার করা হয়। জ্যোতিষশাস্ত্রে বলা হয়, ঝাড়ুকে দেবী লক্ষ্মীর প্রতীক হিসাবে বিবেচনা করা হয়। ঝাড়ুকে কখনও ঘরের মধ্যে এদিক ওদিক যেখানে এখানে ফেলে রাখবেন না। ঝাড়ুকে ঘরের কোনো কোন ঝুলে রাখবেন এবং অবশই সেটির হাতলটি যেন নিচের দিকে থাকে। যাতে কারোর পায়ে না লাগে। পায়ে লাগলে ঠাকুরের আশীর্বাদ ঘর বা বাড়ী থেকে চলে যায়।

আপনি নিশ্চই দেখেছেন পুরীর মন্দিরে রাজা এসে ঝাড়ু দেয় তারপর রথের দড়িতে টান পরে। এই প্রথা সেই প্রাচীন যুগ থেকে হয়ে আসছে।

আরো পড়ুন: Maha Shivratri 2023: জানুন শিবরাত্রি ২০২৩ সময়সূচি, পুষ্পাঞ্জলি মন্ত্র, পুজো পদ্ধতি এবং প্রচলিত গল্প

পঞ্চম লক্ষণ:

আপনার চলার পথে কোথাও টাকা পড়ে থাকতে দেখলে সেই টাকা আপনি নিজের কাছে রাখবেন। এটিও মা লক্ষ্মীর প্রতি সদয় হওয়ার লক্ষণ। যদিও টাকার পরিমান বেশি হলে সেটা তার মালিককে ফেরত দেওয়া উচিত।

ধরুন আপনি রাস্তা দিয়ে যাচ্ছেন এবং যদি রাস্তায় একটি মুদ্রা পরে থাকতে দেখেন, তবে তা আশীর্বাদস্বরূপ বাড়ির সেল্ফ বা নিজের পার্সে রাখা উচিত। এছাড়াও আপনি যদি কোনো টাকা পথে পড়ে থাকতে দেখেন তবে আপনি তা মন্দিরে নিবেদন করবেন। আপনি যদি এটি করেন তবে অবশ্যই আপনার জীবনে ঈশ্বরের আশীর্বাদ বর্ষণ শুরু হবে।

Read More:  Cryptocurrency: ক্রিপ্টোকারেন্সি কি, কিভাবে এটি কাজ করে । Cryptocurrency in Bengali

আপনি এই কয়েকটা কথা যদি মেনে চলেন দেখবেন জীবনের প্রতিটি ক্ষেত্রে আপনি সফলতা পাবেন। আপনার জীবন সুখ – সমৃদ্ধিতে ভরে উঠবে। তাই বন্ধুরা এই লেখাটা যদি ভালোলাগে তাহলে আত্মীয়দের সাথে এবং বন্ধুদের শেয়ার করুন।

আরো পড়ুন: এই গল্প সঠিক মানুষ নির্বাচন করতে শেখায় 

Leave a Comment